1. admin@chapaishikswabarta.com : chapaishikswabarta.com :
সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০১:০১ অপরাহ্ন

হল ছাড়তে নারাজ শিক্ষার্থীরা!

  • প্রকাশিত: সোমবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৩৪ বার পড়া হয়েছে
হল ছাড়তে নারাজ শিক্ষার্থীরা!
ছবি-সংগৃহিত

চাঁশিবা ডেস্কঃ
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের হল ত্যাগের নির্দেশনা প্রত্যাখ্যান করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) তালা ভেঙে আবাসিক হলে অবস্থান নিয়েছে শিক্ষার্থীরা। আবাসিক হলগুলোতে প্রাধ্যক্ষরা শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে হল ত্যাগের কথা বলছেন। তবে এ নির্দেশনা প্রত্যাখ্যান করে এখনও হলে অবস্থান করছেন শিক্ষার্থীরা।

কর্তৃপক্ষের হল ত্যাগের নির্দেশনার প্রেক্ষিতে পাল্টা কর্মসূচির লক্ষ্যে সোমবার দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন চত্বরে একত্রিত হয় শিক্ষার্থীরা। সেখান হতেই শিক্ষার্থী হল ছাড়বেনা বলে জানায়। তারা তাদের ৬ দফা দাবি পুরণ না হওয়া পর্যন্ত হল ছাড়বেনা বলে জানায়।
সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষার্থীরা হলের তালা ভেঙে ভেতরে অবস্থানরতদের বিদ্যুৎ, গ্যাসসহ অন্য মৌলিক সুযোগ-সুবিধা দেওয়াসহ ছয় দফা দাবি জানিয়েছেন।

তাদের অন্য দাবিগুলো হলো, গেরুয়ায় অবস্থানরত শিক্ষার্থীদের পুলিশি নিরাপত্তায় ক্যাম্পাসে ফিরিয়ে আনা, হামলায় আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন, আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া।

এর আগে গত শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন গেরুয়া এলাকায় ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে পূর্ব বিরোধের জেরে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে স্থানীয়রা।

পরে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় তা সংঘর্ষে রূপ নেয়। এ ঘটনায় ৪০ শিক্ষার্থী আহত হন। পরদিন শনিবার দুপুরে হলের তালা ভেঙে ভেতরে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা।

উল্লেখ্য, সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকাল দশটার মধ্যে হলে অবস্থান নেয়া সকল শিক্ষার্থীকে হল ত্যাগ করার নির্দেশ দিয়েছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। অন্যথায় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে শিক্ষার্থীদের সতর্ক করা হয়েছে।

রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশ দেয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় কিছু শিক্ষার্থী সরকারি নির্দেশ অমান্য করে আবাসিক হলে অবস্থান নিয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাদের ২২ তারিখ সোমবার সকাল ১০টার মধ্যে হলত্যাগের নির্দেশ দিয়েছে। অন্যথায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বাধ্য হবে বলে জানানো হয়।

গত শুক্রবার জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ক্যাম্পাস সংলগ্ন গেরুয়ার স্থানীয় লোকজনের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এতে জাবির অর্ধশত শিক্ষার্থী আহত হন।

এ ছাড়া ক্যম্পাসের বাহিরে শিক্ষার্থীরা অনিরাপদ মনে করায় শনিবার বিকালে আবাসিক হলের তালা ভেঙে শিক্ষার্থীরা হলে অবস্থান করা শুরু করেন।

এ ঘটনায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) শিক্ষার্থীদের ওপর স্থানীয় গেরুয়া গ্রামবাসীর হামলার ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বাদী হয়ে রোববার বিকালে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা করেছে।

মামলায় অজ্ঞাতনামা ২৫০ জনের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা শাখার কর্মকর্তা জেফরুল হাসান চৌধুরী সজল বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
Theme Customized By BreakingNews

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায় : মাল্টিকেয়ার